মাদ্রাসায় হামলার বিচার চাই, নইলে আন্দোলনের দাবানল জ্বলে উঠবে: বাবুনগরী

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কান্দিরপাড় এলাকায় অবস্থিত ঐতিহ্যবাহী দ্বীনি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খতমে নবুওয়াত মাদ্রাসা দখলের উদ্দেশ্যে নিরীহ ছাত্রদের ওপর হামলার ঘটনার তীব্র নিন্দা ও কড়া প্রতিবাদ জানিয়েছেন হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের মহাসচিব ও হাটহাজারী মাদ্রাসার সহযোগী পরিচালক আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরী।

তিনি বলেন, দ্রুত সময়ের মধ্যে এ ঘটনার যথাযথ বিচার না হলে পুরো দেশজুড়ে প্রতিবাদী আন্দোলনের দাবানল জ্বলে উঠতে পারে। এমন পরিস্থিতির সৃষ্টি হলে সরকারকে এর দায়ভার বহন করতে হবে।

বুধবার দুপুরে ঘটনাপরবর্তী তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়া জানিয়ে সংবাদমাধ্যমে প্রেরিত এক বিবৃতিতে আল্লামা বাবুনগরী এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, দখলের উদ্দেশ্যে খতমে নবুওয়াত মাদ্রাসায় কাদিয়ানিদের হামলার ঘটনা বরদাশত করা হবে না। অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে সন্ত্রাসী কায়দায় হামলা চালিয়ে মাদ্রাসার ছাত্রদের রক্তাক্ত করে চরম দৃষ্টতা আর দুঃসাহস দেখানো হয়েছে।

বাবুনগরী বলেন, আমরা দীর্ঘদিন ধরে সুশৃঙ্খলভাবে আকিদায়ে খতমে নবুওয়াত নিয়ে দেশব্যাপী শান্তিপূর্ণ আন্দোলন করে আসছি। আমাদের আন্দোলনে কখনও কোনো ধরনের বিশৃঙ্খলা ভাঙচুর হয়নি।

তিনি আরও বলেন, কাফের কাদিয়ানিরা বিনা উসকানিতে কওমি মাদ্রাসার নিরীহ ছাত্র ও আলেমদের ওপর হামলা চালিয়ে রক্তাক্ত করে ইতিহাসে একটি কালো অধ্যায়ের সূচনা করেছে। ৯০ শতাংশ মুসলিম অধ্যুষিত দেশে গুটিকয়েক কাদিয়ানি মাদ্রাসায় হামলা চালিয়ে কোটি কোটি তৌহিদি জনতার কলিজায় আগুন জ্বালিয়ে দিয়েছে।