মহাকাশের ঘ্রা’ণ বিক্রি হবে পারফিউম হিসেবে

নভোচারিরা তাদের মহাকাশ যানের দরজা খুললে হরেক রকমের ঘ্রাণ পান।

কোনো কাজে মহাকাশ যান থেকে বের হয়ে ফিরে আসলেও ঘ্রাণ থেকে যায়। নাসার নভোচারিদের মতে, মহাকাশে তারা স্টেক, রাম ও রাসবেরির গন্ধ পান। অনেক নভোচারির মতে, ঘ্রাণটা পুড়ে যাওয়া কুকিজ মতো। কেউ কেউ আবার জানিয়েছেন, বন্দুক থেকে গুলি বের হলে যে গন্ধ তৈরি হয় মহাকাশেও সেরকম গন্ধ পাওয়া যায়।

তাদের বর্ণনা অনুযায়ী তৈরি করা এ ঘ্রাণ পৃথিবীতে পারফিউম হিসেবে বিক্রি হতে যাচ্ছে। ঘ্রাণ তৈরির লক্ষ্যে স্টিভ পিয়ার্স নামের এক কেমিস্ট ২০০৮ সালে নাসার সঙ্গে চুক্তি করেন। এরপর নাসার নভোচারিদের কাছ থেকে শুনে স্পেস স্টেশনের ভিতরের ঘ্রাণ ল্যাবে তৈরির কাজ শুরু করেন তিনি।

‘অও দি স্পেস’ নামের পারফিউমটি বাজারে আনতে ১৭ আগস্ট পর্যন্ত ক্রাউডফান্ডিং প্ল্যাটফর্ম কিকস্টার্টারে তহবিল গঠনের কার্যক্রম চলবে। যথেষ্ট পরিমাণে তহবিল জমা পড়লে তবেই পারফিউমটি বাজারে আসবে। এখন পর্যন্ত জমা পড়েছে আড়াই লাখ ডলার।

কিকস্টার্টারের ওয়েবসাইটে জানানো হয়েছে, হবু নভোচারিদেরকে মহাকাশের গন্ধের সঙ্গে পরিচিত করানোরই ছিলো গন্ধটি তৈরির মূল উদ্দেশ্য। এখন শীঘ্রই এ গন্ধ ৪ আউন্সের বোতলে পারফিউম হিসেবে কেনা যাবে।