সীমান্তে গোলাগুলি, ভারতীয় কূটনীতিককে ডেকে কঠিন বার্তা দিল পাকিস্তান

কাশ্মীরের নিয়ন্ত্রণ রেখায় সশস্ত্র বাহিনীকে লক্ষ্য করে হামলায় ভারতকে কঠিনভাবে সতর্ক করেছে পাকিস্তান। এ ঘটনায় পাকিস্তানে নিযুক্ত ভারতীয় ডেপুটি হাই কমিশনারকেও তলব করা হয়েছে।

পাকিস্তান পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সূত্রে এক্সপ্রেস ট্রিবিউন উর্দূর খবরে বলা হয়, বৃহস্পতিবার কাশ্মীরের নিয়ন্ত্রণ রেখা বরাবর ভারতীয় সেনাবাহিনীর ছোড়া গুলিতে ৩ সেনা নিহত হওয়ার বিষয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে প্রতিবাদ জানিয়েছে পাকিস্তান। পাকিস্তানে নিযুক্ত ভারতীয় ডেপুটি হাই কমিশনারকে পররাষ্ট্র মন্ত্রণলায়ে ডাকা হয়েছে।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক বিবৃতিতে জানানো হয়, লাইন অব কন্ট্রোলে (এলওসি) ভারতীয় বাহিনীকে নিজস্ব অবস্থানে থাকতে পাকিস্তানের পক্ষ থেকে আহ্বান জানানো হয়েছে। এছাড়া ভারতীয় ডেপুটি হাই কমিশনারকে লিখিত একটি প্রতিবাদলিপিও দেয়া হয়েছে। এতে বিগত কয়েকদিনে সীমান্তে ভারতীয় বাহিনীর উসকানিমূলক কর্মকাণ্ডের তালিকা দেয়া হয়।

ভারতের বাড়াবাড়ির কারণে কোনো উত্তেজনা সৃষ্টি হলে পাকিস্তান কঠিন পদক্ষেপ নেবে বলেও ভারতীয় ডেপুটি হাই কমিশনারকে হুশিয়ারি করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, কাশ্মীর নিয়ে ভারতের সঙ্গে বাণিজ্যিক ও আন্তঃসীমান্ত পরিবহন বাতিল করেছে পাকিস্তান। তাছাড়া ভারতীয় রাষ্ট্রদূতকেও বহিষ্কার করেছে ইসলামাবাদ। পাকিস্তানে নিযুক্ত ভারতীয় রাষ্ট্রদূত অজয় বিসারিয়াকে ফেরত পাঠানোয় দেশটিতে ডেপুটি হাই কমিশনারের মাধ্যমে কূটনৈতিক কার্যক্রম চালাচ্ছে ভারত।

প্রসঙ্গত, কাশ্মীর নিয়ে উত্তেজনার মধ্যেই বৃহস্পতিবার সীমান্তে পাকিস্তান ও ভারতের মধ্যে গোলাগুলির ঘটনা ঘটেছে। এতে ভারতের ৫ সেনা ও পাকিস্তানের ৩ সেনা সদস্য নিহত হয়েছে।

পাকিস্তান সেনাবাহিনীর মুখপাত্র মেজর জেনারেল আসিফ গফুর জানিয়েছেন, কাশ্মীরের নিয়ন্ত্রণ রেখা বরাবর ভারতীয় সেনাবাহিনী গুলি ছোড়ার পর পাকিস্তানি সেনারা পাল্টা আক্রমণ চালিয়েছে। এর ফলে পাঁচ জন ভারতীয় সেনা নিহত ও বহু আহত হয়েছে। এছাড়া ভারতীয় বাহিনীর বাঙ্কারও ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে বলে তিনি জানান। তবে সেনা নিহতের বিষয়টি অস্বীকার করেছে ভারত।

ভারতীয় গণমাধ্যম দেশটির সশস্ত্র বাহিনীর বরাত দিয়ে জানিয়েছে, ভারতের কোনো সেনা প্রাণ হারায় নি।